চেলসিকে নাচিয়ে ছাড়লো নাপোলি

একটা নতুন সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার পাওয়ার জন্য চেলসি কোচ আন্তোনিও কন্তের হাহাকারটা আজকের নতুন নয়। পুরো ট্রান্সফার উইন্ডোতে বিভিন্ন ডিফেন্ডারের সাথে লিঙ্কড হয়ে শেষ পর্যন্ত নিজেদের ঘরের ছেলে ব্রাজিলিয়ান সেন্টারব্যাক ডেভিড লুইজকেই ৩২ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই হতে ফিরিয়ে এনেছে তাঁরা।

বলা বাহুল্য, লুইজ কিন্তু কন্তের প্রথম পছন্দের ডিফেন্ডার ছিলেন না। পুরো ট্রান্সফার উইন্ডো মূলতঃ নাপোলির ফরাসী সেন্টারব্যাক কালিদু কোলিবালির পিছেই ঘুরেছে তাঁরা। ব্রিটিশ পত্রিকা দ্য টেলিগ্রাফের কথা বিশ্বাস করলে এই কোলিবালির জন্য ৬০ মিলিয়ন পাউন্ড পর্যন্ত দিতেও প্রস্তুত ছিল চেলসি। কিন্তু নাপোলির মালিক অরেলিও ডে লরিনাইটিস কোনভাবেই কোলিবালিকে ছেড়ে দিয়ে নিজেদের দলকে দুর্বল করতে রাজী হননি। গত মৌসুমে সিরি আ তে নাপোলির রানার্সআপ হবার পেছনে যাদের অবদান ছিল, তাঁদের মধ্যে আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার গঞ্জালো হিগুয়াইন আর এই কোলিবালির অবদান সর্বাপেক্ষা উল্লেখযোগ্য। হিগুয়াইনকে ক্লাব রেকর্ড ৯৪ মিলিয়ন ইউরোতে জুভেন্টাসের কাছে বেচে দেওয়ার পর ডিফেন্সের মধ্যমণিকেও নাপোলি ছেড়ে দিলে তাঁদের সিরি আ স্বপ্নে ভালোই ব্যাঘাত ঘটত। সেটা হতে দেননি লরিনাইটিস।

শুধু এটুকু করেই ক্ষান্ত হননি লরিনাইটিস বা নাপোলি। কোলিবালিকে না পেলে সেক্ষেত্রে চেলসির দ্বিতীয় পছন্দ ছিল আরেক ইতালিয়ান ক্লাব তোরিনোর সার্বিয়ান সেন্টারব্যাক নিকোলা মাকসিমোভিচ। সব বাদ দিয়ে চেলসির ডেভিড লুইজের পেছনে ছোটার অর্থ হল এই মাকসিমোভিচকেও দলে টানতে ব্যর্থ হয়েছে চেলসি ম্যানেজমেন্ট। আর চেলসির এই ব্যর্থ হবার কারণ?

নাপোলি!

নিজেদের ডিফেন্সকে শক্তিশালী করার উদ্দেশ্যে তোরিনো থেকে ৫ মিলিয়ন ইউরো লোন ফি বাবদ আপাতত এক বছরের ধারে মাকসিমোভিচকে নিয়ে এসেছে নাপোলি। এক বছর পর ২১ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে পাকাপাকিভাবে মাকসিমোভিচকে দলে নেওয়াই লাগবে নাপোলিকে। তা যাই হোক না কেন, চেলসি ত তাঁদের অর্থনৈতিক সচ্ছ্বলতা প্রদর্শন করেও নাপ্লইর সাথে পেরে উঠলো না। উলটো নিজেদের সাবেক ডিফেন্ডার ডেভিড লুইজকেই কালকের ডেডলাইন ডে তে কেনা লাগলো তাঁদের, যেই ডেভিড লুইজের ডিফেন্স করার স্টাইল যথেষ্ট প্রশ্নবিদ্ধ ও অধারাবাহিক।

পুরো ট্রান্সফার উইন্ডো তাই নাপোলির সাথে লড়ে ও হেরেই কাটাতে হল ইংলিশ জায়ান্ট চেলসিকে!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

1 × 4 =