চল বাংলাদেশ

জুহায়ের সাদমান খান –

সেদিন রাতে কাঁদতে পারিনি। মাথায় তখন অনেক প্রশ্ন। কোনদিক দিয়ে ২টা রান বের হয়ে গেল। সাহাদাতের লাস্ট ওভার? নাজিমুদ্দিনের শম্বুকগতির ব্যাটিং? রাজ্জাকের বোকাচুমার্কা ব্যাটিং? মাশরাফির খুব খুব অসময়ে আউট হয়ে যাওয়া?

পরদিন আমার ভাইয়ের জন্মদিন ছিল। দুপুরে কেউ একজন এই ভিডিও পোস্ট করল। বাসার সবার মন খারাপ এমনিতে। তাও ওর সাথে কেক কাটতে আসতে ডাক দিচ্ছিল সবাই। ওই টাইমে এই ভিডিও দেখলাম। দেখে চোখ দিয়ে পানি পড়তেসে তো পড়তেসেই।

ক্রিকেট দলটা খুব ইমোশনের একটা জায়গা আমার। ২ রান কোন দিক দিয়ে গেল ওইটা চিন্তা করতে করতে এক রাত ঘুম হয় নাই। রাতে যদি এই ভিডিও পাইতাম নির্ঘাত কান্দিকাটি ঘুমায় যাইতে পারতাম।

“ভাবতে ভাল লাগে, নতুন দিনের শুরু হচ্ছে আজকে
ছড়াতে তোমাদের আকাশে আমার নিজের আলো
কতগুলো আত্মার মাঝে লুকিয়ে আছে আমার দেশের ছায়া
তোমাদের আছে জড়িয়ে অনেক অনেক জনমের মায়া
পারো কি তুমি বুঝতে?
পারো অনুভব করতে?
কি দারুণ আনন্দ জাগে মনে
চল বাংলাদেশ….”

এখন আমার মনে হয় কি, ওইদিন ২ রানে না হারলে আমরা এখন এত ভাল টিম হইতাম না। মাহমুদুল্লাহ আজকেই যেমন বলল, ওইদিনের হতাশা কখনই ঘুচবে না কিন্তু আজকে তার কিছুটা প্রায়শ্চিত্ত হইসে।

ইন্ডিয়া টি২০ তে অনেক অনেক টাফ একটা অপোনেন্ট, পৃথিবীর সেরা, সত্যি কথা বলতে আমার নিজেরও মনে হয়না ওদের হারানো সম্ভব। কিন্তু আমার কি মনে হয় না হয় তাতে কিছুই আসে যায় না।

তারা যদি মনে করে হারানো সম্ভব, তাহলে তাদের হারানো সম্ভব। ১টা ক্রিকেট খেলা, ৪০ ওভার, ১১ বনাম ১১, ৫০-৫০ চান্স। হতেই পারে। কতকিছুই তো হয়। এবার হয়ে যাক না একটা কিছু।

শুধু এরকম হার্টব্রেক আর চাই না। অনেক অনেক সময় লাগসিল আমার স্বাভাবিক হইতে। এখনো ২০১২ সালের দুঃখ কাটাইতে পারি নাই, এবার ফাইনাল জিতলেও কাটবে বলে মনে হয় না (কারণ এবার টি২০, ওডিআই না)।

চল বাংলাদেশ। We go again.

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

2 × two =