খুশিতে পাগল হই যাইয়ের!

দল প্রেসারে, আমির বেশি জোস বোলিং করতেসে, আরেকবার ‘২ রান’ গল্প হওয়ার সম্ভাবনা, তখন সে নিজেরে উঠায়ে আনল ব্যাটিং অর্ডারে ওপরে। তারপর দুই বলে দুই চার।

ম্যাশ, তুই কী ভাই? আর কতবার নতুন নতুন ‘অতিমানবীয়’ গল্প লিখবি?

ইমরান খান, কপিল দেবদের অধিনায়কত্ব তো দেখি নাই। কিন্তু আমি শিওর, ওরাও তোরে দেখলে স্ট্যান্ডিং ওভেশান দেবে।

যেমনে ম্যাচ জিতসি, আসলে ক্রিকেট ম্যাচ এম্নেই জেতা উচিত। অ্যাড্রেনালিন রাশ বাড়ায়ে দিয়ে, প্রত্যেকটা মোমেন্টে এক্সাইটমেন্ট ধরে রেখে। টি-টোয়েন্টি তো এমনেই জিতে!

পজিটিভের শেষ নাই। ফাইনাল, সৌম্যর রানে ফেরা, মাহমুদউল্লাহর ব্যাটিং, মুস্তাফিজ ছাড়াও এমন বোলিং, দল হিসেবে খেলা….আর আরেকবার অধিনায়ক মাশরাফিতে মুগ্ধ হওয়া! <3 <3

বত্ব, শ্রীলঙ্কা – টেকেন কেয়ার অব। পাকিস্তান – ২০১২ ‘২ রান’ রিভেঞ্জ ওয়েল টেকেন!
ইন্ডিয়া – গেট রেডি! মু হা হা হা হা!

খুশিতে পাগল হই যাইয়ের!
টিম বাংলাদেশ!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

3 × 4 =