ক্রিকেটেও পয়েন্ট সিস্টেম

ক্রিকেটেও পয়েন্ট সিস্টেম! র‌্যাঙ্কিংয়ের জন্য পয়েন্ট নয়, প্রতিটি ম্যাচের পয়েন্ট, যেটির মাধ্যমে নির্ধারিত হবে দ্বিপাক্ষিক সিরিজের সার্বিক বিজয়ী। কাল থেকে দুবাইয়ে শুরু হতে যাওয়া আইসিসি সভায় আলোচনা হবে ক্রিকেটে পয়েন্ট সিস্টেম চালু করা নিয়ে। ইন্টারেস্টিং!

ক্রিকেটের আরও অনেক কিছুর মতো যথারীতি এটিরও উদ্ভাবক ইংল্যান্ড। দ্বিপাক্ষিক সিরিজের টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি, প্রতিটির জন্য আলাদা থাকবে পয়েন্ট। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে পয়েন্ট যোগ করে এগিয়ে থাকা দল হবে সিরিজ বিজয়ী। অলরেডি মেয়েদের ক্রিকেটে এটি চালু করা হয়েছে। ২০১৩ মেয়েদের অ্যাশেজ থেকে চালু হয়েছে। একটি টেস্ট জয়ের জন্য ৬ পয়েন্ট, ড্র হলে দুই দল ২ পয়েন্ট করে। আর ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি জয়ের জন্য ২ পয়েন্ট। পরে অবশ্য টেস্ট জয়ের জন্য পয়েন্ট ৬ থেকে কমিয়ে ৪ করা হয়েছে।

ছেলেদের ক্রিকেটেও চালু হলে পয়েন্ট সিস্টেম থাকবে হয়ত এরকম কিছুই। যদিও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির পয়েন্ট সমান হওয়া উচিত নয়। তবে সেসবের আলোচনা পরে। আইডিয়াটিই আমার দারুণ লেগেছে। দ্বিপাক্ষিক সিরিজগুলো এতে আরও অর্থবহ হবে, প্রতি সিরিজের প্রতিটি ম্যাচই হয়ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে, ডেড রাবার বা নিয়ম রক্ষার ম্যাচের সংখ্যা অনেক কমে যাবে। সবচেয়ে বড় কথা, ক্রিকেটার, দর্শক, স্পন্সর, সংবাদমাধ্যম, ব্রডকাস্টার, সবাই আরও বেশি ইনভলবড থাকবে। দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নিয়ে দর্শক ও ব্রডকাস্টারদের আগ্রহ যেভাবে কমে যাচ্ছে, সেটাও আবার বাড়বে। সব মিলিয়ে খেলাটাই আকর্ষণীয় হবে।

ইতিমধ্যেই আসছে ইংলিশ সামারে শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ পয়েন্ট সিস্টেমে খেলার প্রস্তাব ওই দুই দেশের বোর্ডকে দিয়ে রেখেছে ইংল্যান্ড। ওই দুই দেশের বোর্ড রাজী হলে ইংল্যান্ড পয়েন্ট সিস্টেম চালু করবে। আর আইসিসি যদি ইউনিভার্সালিই চালু করে, তাহলে তো কথাই নেই! খেলাটা আরও অনেক বেশি ইন্টারেস্টিং হবে…!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

14 − 4 =