কিউই মোকাবেলার আগে কিছু কথা…

টিপিক্যাল ম্যাচ রিভিউ বা স্ট্যাটিস্টিক্স এনালাইসিসে যাবো না । ম্যাচের আগের সিনারিও সবারই জানা । নিউজিল্যান্ড আমাদের এখানে আগের দুটো সিরিজে একদম ভালোভাবেই হেরেছে এটা সবারই জানা । সাথে সাথে নিউজিল্যান্ডে আমাদের বলার মতো সাফল্য নাই বললেও চলে- এইটাও কারো অজানা না ।

B_6ab7nXEAAyAVJ

# তাদের পেসারেরা ভালো রকমের ফর্মে । ট্রেন্ট বোল্ট আর সাউদি টুর্নামেন্ট লিডার । সাথে তাদের মেইন স্পিনার ড্যানিয়েল ভেট্টোরিও লিডারবোর্ডে ভালো জায়গায় । পেসার দুইজনের ১৩টা করে উইকেট আর ভেট্টোরির উইকেট ১২টা । সাথে মাথায় রাখেন কোয়ালিটি পেইস বোলিং এ আমাদের ক্রিকেটের জন্মগত ব্যর্থতার লম্বা ফিরিস্তি । আমাদের এদিকটায় যতোই তাসকিন বা রুবেলরা উইকেট নিক , দিনশেষে আমরা রান আটকানোর আসল কাজটায় সাকিবের হাতের দিকেই তাকিয়ে থাকবো । মাশরাফি পাশে যেই দুইজনকে পাচ্ছেন, দুইজনই জোরে বল করতে পারেন । তবে চাপে পড়লে শর্টবল দেওয়ার রোগের প্রেসকিপশন বের করে ফেলাটা জরুরি বাংলাদেশের দিক থেকে এই ম্যাচে খুব ভালো কোন রেজাল্ট আনার জন্যে । ইংল্যান্ড ম্যাচের কথাই ভাবেন না কেন ? রুবেল খুব ভালো দুইটা ডেলিভারি দিয়ে ম্যাচটা বের করে আনলেও আগের ওভারেই কিন্তু তাসকিন ভালো লেভেলের একটা পিট্টি খেয়ে ম্যাচটা দিয়ে দিচ্ছিলো । দেখা গেলো যে , শর্ট আর বাইরে বল পেয়ে ব্রডের মত টেল এন্ডারও এডিলেডে ভাল একটা ছক্কা মেরে দিলো তাসকিনকে । স্লগে বলটা কোথায় ফেলতে হয় সেটা তাসকিনেরও জানা । চাপটা জয় করে ঐ বলটা করতে হবে । এখানে আপনি ম্যাককুলামকে বল করছেন , মাঠগুলোও ছোটো ! খুব সাবধান ! …

B_0BTTaUYAAQo4J

# ম্যাককুলামকে সকাল সকাল না ফেরাতে পারলে ইলেকশনে জামানত বাজেয়াপ্ত হওয়ার মতো শরমে পড়তে হবে বলার অপেক্ষা রাখে না । সাথে কেইন উইলিয়ামসের মতো টপক্লাস ইনিংস বিল্ডার আর রস টেলরের এগ্রেশন শান্তিতে থাকতে দিবে না বাংলাদেশকে ।লোয়ার মিডল অর্ডারের লিডারশিপ কোরি এন্ডারসনের কাছে । লিস্ট দেখে বুঝতে বাকি থাকার কথা না যে বোলিং এ বাংলাদেশের “TO DO” লিস্টটা ভালই লম্বা । About Bangladesh Batting ? স্কটল্যান্ডের সাথে ম্যাচ বাদ দিলে টপ অর্ডার বাংলাদেশের সুপারফ্লপ ! মাহমুদুল্লাহ রানে থাকলেও ভয় দেখানো আর রান তোলার দ্বৈত রোলের আসল হিরো কিন্তু মুশফিক । রানের মধ্যে আছেন … বড় বড় শট খেলতে পারছেন । অন্যদিক থেকে সাকিবের ক্যারিয়ারে নিউজিল্যান্ড অনেক বড় ফ্যাক্টর । সুপারস্টার সাকিবের উঠা তো ২০১০ এর বাংলাওয়াশ থেকেই !

তবে পাশাপাশি রাখলে সাকিব-মুশফিক ছাড়া আমাদের ব্যাটিং এ ফিয়ারফ্যাক্টর না থাকলেও তাদের ফিয়ারফ্যাক্টরের লিস্ট অনেক লম্বা ! ম্যাককুলাম-কেইন-টেলর-কোরি-লুক রনকি হালকা হালকা !

# হ্যামিল্টনের সিডন পার্কে খেলা হচ্ছে । বিশ্বকাপে এই মাঠে আগে খেলা হয়েছে দুটি । সাউথ আফ্রিকা-জিম্বাবুয়ে ম্যাচ আর ভারত- আয়ারল্যান্ড । দুইটা ম্যাচের মিল আছে একটা জায়গায় । প্রথমে আন্ডারডগ দলটা আশাবাদী হবার মত শুরু পেয়েছে , তারপরে আসল ফেবারিটরাই ম্যাচের কন্ট্রোল নিয়ে ম্যাচ বড় মার্জিনে পকেটে ভরেছে । কাগজে কলমে হোক আর এই বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স বিবেচনায় হোক , ম্যাচের আগে পিছিয়ে আমরাই !

তবে আগের দুইটা স্টোরির চাইতে আলাদা কিছু চাই । কোয়ার্টার কনফার্ম ! ম্যাচ হারলে গ্রুপে ফোর্থ হতে হবে । একটু উপরে থেকেই হোক না শেষটা…

 

ছবি – স্টার

বাংলাদেশের সাথে নিউজিল্যান্ডের ইতিহাস সুবিধার নয় মোটেও...
বাংলাদেশের সাথে নিউজিল্যান্ডের ইতিহাস সুবিধার নয় মোটেও…

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

16 − twelve =