কে বলে আমরা উন্নতি করিনি?

বহুদিন আগের একটা ম্যাচের কথা মনে পড়ে। তখন ম্যাচের পর ম্যাচ গোহারা হারতাম। ২০০ রানকেও মনে হত আকাশের চাঁদ। তো একদিন পাকিস্তান না নিউজিল্যান্ড কার সাথে জানি, নিউজিল্যান্ডই মনেহয়, আমাদের আশরাফুল টেস্ট মেজাজে খেলে একটা ফিফটি করলো। শেষদিকে নেমে রফিক তুলনামূলক একটা ঝড়ো ক্যামিও খেলে স্কোরটাকে ১৯৮/১৯৯তে নিয়ে গেল।

রিগার্ডলেস অফ দ্য রেজাল্ট, ২০০ এর আশেপাশে যে গেসি, এটাই ছিল তখনকার বিরাট অ্যাচিভমেন্ট। মনে পড়ে, পরেরদিন সকালে পত্রিকায় জনৈক ক্রীড়াসম্পাদক একটা থিওরিও বের করেছিলেন, দলের একজন মোটামুটি পঞ্চাশ করলে আর একজন মোটামুটি মানের ক্যামিও খেললে ২০০ ছোঁয়া যায়। আমরা ২০০ করার রেসিপি পেয়ে গেছি।

ফাস্ট ফরোয়ার্ড টেন-টুয়েলভ ইয়ার্স, এখন ভিভিএস লক্ষ্মণ বলে, ইংল্যান্ড এখন বাংলাদেশের স্টাইলে ওয়ানডে খেলে। ইংল্যান্ড এখন যা ধুমধাড়াক্কা দেখাচ্ছে সে পথ ইংল্যান্ডকে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে গেছে বাংলাদেশই, গত বিশ্বকাপে!

আমরা এখন ৩৫০ এর স্বপ্ন দেখি, ৩০০ তে আমাদের মন ভরেনা। মনেহয় ইস, ২৫টা রান কম হয়ে গেল।

কে বলে আমরা উন্নতি করিনি?

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

seven + eight =