ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ক্রিকেট দল : “সাফল্য কথন”

ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিভাগের এক ঝাঁক স্বপ্নালু চোখের তরুণদের সমন্বয়ে গঠিত ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ক্রিকেট দল। হাটি হাটি পা পা করে বেশ খানিকটা পথ অতিক্রম করে ইতোমধ্যে নিজেদের শক্তিমত্তার পরিচয় দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম শক্তিশালী ও সেরা দল হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে এ বিভাগের ক্রিকেট দলটি। সাফল্যের মূলমন্ত্রে দীক্ষিত এ বিভাগের প্রতিটি খেলোয়াড়ই মুখিয়ে থাকে জয়ের নেশায়। সে সূত্র ধরে প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই আক্রমণাত্মক খেলে জয় ছিনিয়ে আনে আইবি ক্রিকেট দল। যার প্রমাণ মেলে ২০১৪-১৫ সেশনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক আয়োজিত আন্তঃবিভাগ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের অপরাজেয় চ্যাম্পিয়নশীপের মাধ্যমে। আইবি ক্রিকেট দল প্রতিষ্ঠার মাত্র ৫ বছরের ব্যবধানে এই বিজয় অবশ্যই জানান দেয় তাদের শক্তি ও সামর্থ্যের কথা।
ইসলাম শিক্ষা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের মতো অত্যান্ত শক্তিশালী দলগুলোকে রীতিমতো নাস্তানাবুদ করে সেমিফাইনালে স্থান করে নেয় এই দল। যেখানেও ছিলো অত্যান্ত কঠিন প্রতিপক্ষ রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ এবং ১৭১ রানের বিশাল টার্গেট। সবকিছু উপেক্ষা করে ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তা ও ঝড়ো ব্যাটিয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগকে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়ে মাঠ ছাড়ে আইবি ক্রিকেট দল। ফাইনালে প্রতিপক্ষ হিসাববিজ্ঞান বিভাগ, অত্যান্ত শ্বাসরুদ্ধকর এই খেলাতেও ৭ রানের ব্যবধানে ম্যাচ জিতে চূড়ান্ত বিজয় ছিনিয়ে আনে আইবির ছেলেরা। টুর্নামেন্ট সর্বোচ্চ রান করাদের তালিকায় শীর্ষে ছিলেন এই বিভাগেরই এমবিএ পড়ুয়া রয়হান আহমেদ। এই বিভাগেরই আরেক শিক্ষার্থী মোহন খন্দকার ছিলেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী হিসেবে।
যোগ্য অধিনায়কত্ব, কঠোর পরিশ্রম, একাগ্রতা তাছাড়া মেহমুদ জয়, তানভীর, দিনার, রবিন, অতনু বর্মন, এহসান, সাফল্য, খাজা প্রমুখ খেলোয়ারদের নিষ্ঠা ও ওয়ালিদ আমিন উপল এবং বিভাগের বেশ কিছু শিক্ষকের তত্বাবধানে গঠিত দক্ষ টীম ব্যবস্থাপনা সাথে দর্শকদের আন্তরিকতার কারনে খুব অল্প সময়ের ব্যবধানে এই অধরা জয় ধরা দিয়েছে বলে মনে করেন দলের সাথে জড়িত সকলে। গতবছরের সেই সাফল্য ও বিজয়ের সাহসকে পুঁজি করে আবার মাঠে নামবে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ক্রিকেট দল। ২০১৫-১৬ সেশনের জন্য আয়োজিত আন্তঃ বিভাগ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের এই পর্বে প্রথমে তাদের মুখোমুখি হতে হবে উত্তরাঞ্চলের আরো দুটি শক্তিশালী প্রতিপক্ষ দর্শন ও পপুলেশন সাইন্স বিভাগের বিপক্ষে। সেই লক্ষ্যে শেষ মুহুর্তের জন্য কঠোর অনুশীলনের মাধ্যমে নিজেদেরকে আরো একবার ঝালিয়ে নিচ্ছে তারা। কিন্তু খেলোয়ারদের মাঝে সময় সচেতনার অভাব ও যোগ্য স্পন্সারশীপ হীনতার কারনে কিছুটা হতাশার আভাস পাওয়া যাচ্ছে এবার। তা সত্ত্বেও গত বছরের ন্যায় এবারও বিজয়ের হাতছানির ডাকে সাড়া দিয়ে জয়ের লক্ষে পূর্ণোদ্যমে এগিয়ে যাবে বিভাগের সকল খেলোয়াড় ও দলের সাথে জড়িত সকলে, সেই আশাবাদই ব্যক্ত করা হচ্ছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিভাগ ক্রিকেট দলের জন্য।

এমদাদুল হক
বিভাগঃ ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস
সেশনঃ ২০১৩-১৪

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

five × five =