ইউরো টিম প্রিভিউ : আলবেনিয়া

প্রথমবারের মত ইউয়েফা বা ফিফা অনুষ্ঠেয় কোন টুর্নামেন্টে অংশ নিতে যাচ্ছে এবার আলবেনিয়া। বলকান এই রাষ্ট্রের এই স্বপ্ন সফল করার পেছনের রূপকার – সাবেক তুরিনো ও উদিনেসে কোচ জিয়ান্নি দে বিয়াসি। শুধুমাত্র ক্লদিও রানিয়েরিই একমাত্র ইতালিয়ান নন যিনি এবার অবহেলিত ও দুর্বল দল নিয়ে বাজিমাত করেছেন ফুটবল বিশ্বে। আরেকজনের নামও আসবে এই তালিকায়। তিনি হলেন এই আলবেনিয়ান কোচ জিয়ান্নি ডে বিয়াসি। ২০১১ সালের ডিসেম্বরে দায়িত্ব নেওয়ার পর এই চার বছরে আলবেনিয়ান দলটাকে এমন এক অনতিক্রমণীয় উচ্চতায় নিয়ে গেছেন, যা তাঁর পূর্বসূরীদের কেউ কখনো পারেনি। আলবেনিয়ান প্রেসিডেন্ট এখন দেশের ফুটবলকে আমূল বদলে দেওয়া এই ইতালিয়ান কোচকে আলবেনিয়ান নাগরিত্ব দিয়েছেন নিজ উদ্যোগেই, কৃতজ্ঞতাস্বরূপ।

কিছুদিন আগে এবারের ইউরোর জন্য ২৩ সদস্যের দল ঘোষণা করেছেন তিনি। দেখে নেওয়া যাক দলটা কিরকম হল –

 

  • গোলরক্ষক

এটরিট বেরিশা (লাজিও)

অরগেস শেহি (স্কেন্ডেরব্যু কোর্চে)

আলবান হোশা (পার্টিজানি তিরানা)

গোলপোস্টে থাকছেন লাজিওর এটরিট বেরিশা
গোলপোস্টে থাকছেন লাজিওর এটরিট বেরিশা

 

  • ডিফেন্ডার

লোরিক কানা (নান্তে)

আনসি আগোল্লি (কারাবাগ)

আন্দি লিলা (পিএএস জিয়ান্নিনা)

মিয়েরগিম মাভরাজ (এফসি কোলন)

আরলিন্দ আহেতি (ফ্রোজিনোনে)

এলসিদ হাইসাজ (নাপোলি)

নাসের আলিইয়ি (এফসি বাসেল)

ফ্রেডেরিক ভেসেলি (লুগানো)

 

  • মিডফিল্ডার

ওডিসে রোশি (রিয়েকা)

মিগইয়েন বাশা (কোমো)

আরমির লেনজানি (নান্তে)

আমির আবরাশি (এফসি ফ্রাইবুর্গ)

বুরিম কুকেলি (এফসি জুরিখ)

এরগিস কাচে (পিএওকে)

লেদিয়ান মেমুশাজ (পেসকারা)

শেকিয়েলেন গাশি (কলোরাডো র‍্যাপিডস)

তলান্ত শাকা (এফসি বাসেল)

 

  • স্ট্রাইকার

আরমান্ডো সাদিকু (ভাদুজ)

সোকোল সিকাইয়েশি (ইস্তাম্বুল বাসাকশেহি)

বেকিম বালাজ (রিয়েকা)

 

  • উল্লেখযোগ্য যারা বাদ পড়েছেন :

সামির উজকানি (গোলরক্ষক, জেনোয়া)

আরভিন বুলকু (মিডফিল্ডার, তিরানা)

রে মানাজ (স্ট্রাইকার, ইন্টার মিলান)

হামদি সালিহি (শেকিয়ান্দারব্যু কোর্চে)

 

তিনবছর আলবেনিয়ার হয়ে খেলে মাতৃভূমি কসোভোর টানে সাড়া দিয়েছেন গোলরক্ষক সামির উজকানি, তাই তাঁকে পাচ্ছেনা আলবেনিয়ানরা। অভিজ্ঞ আরভিন বুলকু ও হামদি সালিহিকেও মূল দলে রাখেননি কোচ জিয়ান্নি ডে বিয়াসি। রাখেননি ইন্টার মিলানের তরুণ স্ট্রাইকার রে মানাজকেও।
এবারের বাছাইপর্বে ক্রিস্টিয়ান এরিকসেন-ড্যানিয়েল অ্যাগারের ডেনমার্ক, ইভানোভিচ-কোলারভ-নাসতাসিচ-তাদিচ-মাতিচ-লিয়ায়িচের সার্বিয়াকে পেছনে ফেলে আট ম্যাচে মাত্র পাঁচ গোল খেয়ে ইউরোতে এসেছে আলবেনিয়া। ফলে তাদেরকে অত হেলা করে দেখার সুযোগও কিন্তু নেই।

 

আলবেনিয়ার গ্রুপ ‘এ’ তে বাকী তিন গ্রুপসঙ্গী হচ্ছে স্বাগতিক ফ্রান্স, সুইজারল্যান্ড এবং রোমানিয়া। দেখে নেওয়া যাক কিরকম হতে পারে আলবেনিয়ার মূল একাদশ –

 

গোলবারে লাজিওতে খেলা এটরিট বেরিশার স্থান নিশ্চিত। আলবেনিয়ার মূল ফর্মেশান মূলত ৪-৫-১, তবে কোচ আজকাল ৪-৩-৩ এও খেলাতে পছন্দ করছেন। চারজনের ডিফেন্সের মাঝে জুটি বাঁধবেন আলবেনিয়ার ইতিহাসে সবচেয়ে বেশী ম্যাচ খেলা, অধিনায়ক লোরিক কানা।  তাঁর সাথে থাকবেন এফসি কোলনে খেলা মিয়েরগিম মাভরাজ। মাভরাজ না খেললে সেই জায়গায় খেলতে পারেন ইতালিয়ান ক্লাব ফ্রোজিনোনের সেন্টারব্যাক আরলিন্দ আইয়েতি। রাইটব্যাক হিসেবে খেলবেন এই মৌসুমে নাপোলির হয়ে মাঠ মাতানো এলসিদ হাইসাজ। তাঁর ব্যাকআপ থাকছেন গ্রিক ক্লাব পিএএস জিয়ান্নিনাতে খেলা অভিজ্ঞ রাইটব্যাক আন্দি লিলা। লেফটব্যাক হিসেবে থাকছেন আজারবাইজানি ক্লাব কারাবাগে খেলা অভিজ্ঞ আনসি আগোল্লি, তাঁর ব্যাকআপ হিসেবে থাকছেন এফসি বাসেলের নাসের আলিয়ি।

এবার ইতালিয়ান সিরি আ এর সেরা রাইটব্যাক নাপোলির এলসিদ হাইসাজ খেলছেন আলবেনিয়ার হয়ে
এবার ইতালিয়ান সিরি আ এর সেরা রাইটব্যাক নাপোলির এলসিদ হাইসাজ খেলছেন আলবেনিয়ার হয়ে

৪-৫-১ এ খেললে তিনজন সেন্ট্রাল মিডফিল্ডারের মধ্যে সুইজারল্যান্ডে খেলা সুপারস্টার গ্রানিত শাকার ভাই তলান্ত শাকার খেলাটা নিশ্চিত। তাঁর সাথে খেলতে পারেন এফসি জুরিখের বুরিম কুকেলি ও এসসি ফ্রাইবুর্গের আমির আবরাশি। লেফট মিডফিল্ডার হিসেবে খেলার সম্ভাবনা সবচাইতে বেশি ফরাসী ক্লাব নান্তে তে খেলা আরমির লেনজানির। কোচ জিয়ান্নি ডে বিয়াসি ৪-৩-৩ ফর্মেশানে আলবেনিয়াকে খেলাতে চাইলে এই লেনজানি আবার আরও উপরে উঠে গিয়ে লেফট উইংয়ে খেলবেন। রাইট মিডফিল্ড (৪-৫-১ ফর্মেশানে) বা রাইট উইঙ্গার (৪-৩-৩ ফর্মেশানে) হিসেবে খেলবেন ক্রোট ক্লাব রিয়েকাতে খেলা ওডিসে রোশি, কলোরাডো র‍্যাপিডসের শেকিলেয়েন গাশি কিংবা আন্দি লিলার যেকোন একজন। রাইটব্যাকে এলসিদ হাইসাজ যেহেতু থাকছেনই, তাই আন্দি লিলা ও হাইসাজ দুইজনকেই একসাথে খেলাতে গেলে লিলাকে রাইট মিডফিল্ডার হিসেবে আবির্ভূত হতে হবে। সেন্ট্রাল মিডফিল্ডে ব্যাকআপ হিসেবে থাকছেন কোমোর মিডফিল্ডার মিগইয়েন বাশা ও পেসকারার মিডফিল্ডার লেদিয়ান মেমুশাজ।

সেন্ট্রাল মিডফিল্ডে তলান্ত শাকার থাকা নিশ্চিত, ফলে এবারের সুইজারল্যান্ড-আলবেনিয়া ম্যাচে দুই ভাইয়ের লড়াই দেখতে যাচ্ছে বিশ্ব - গ্রানিত শাকা ও তলান্ত শাকা
সেন্ট্রাল মিডফিল্ডে তলান্ত শাকার থাকা নিশ্চিত, ফলে এবারের সুইজারল্যান্ড-আলবেনিয়া ম্যাচে দুই ভাইয়ের লড়াই দেখতে যাচ্ছে বিশ্ব – গ্রানিত শাকা ও তলান্ত শাকা

একমাত্র স্ট্রাইকার হিসেবে খেলবেন সোকোল সিকাইয়েশি। তাঁকে পজিশনটার জন্য লড়াই করতে হবে রিয়েকার স্ট্রাইকার বেকিম বালাজের সাথে।

1453072_Torquay_United

ভৌগলিক, রাজনৈতিক কিংবা পারিবারিক কারণে, আলবেনিয়ান রক্ত গায়ে বইছে এরকম অনেক খেলোয়াড়ই খেলছেন সুইজারল্যান্ডে। জেরদান শাকিরি, গ্রানিত শাকা, আদমির মেহমেতি, পাজতিম কাসামি, ভ্যালন বেহরামি, ব্লেরিম জেমাইলিদের কথাই চিন্তা করুন। এরা আলবেনিয়ান দলে থাকলে, দলটার শক্তি কি পরিমাণ বাড়ত!

এই দল নিয়ে আলবেনিয়ার দৌড় কদ্দুর, বোঝা যাবে সেটা ১০ জুন থেকেই!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

2 + 12 =