আর্জেন্টিনা কি এবার আসলেই এতটা হেলাফেলা করার মত দল?

আর্জেন্টিনা কি এবার আসলেই এতটা হেলাফেলা করার মত দল?

::: আব্দুল্লাহ আল নোমান :::

নিত্যদিন এর জীবনে অামরা সবাই অান্ডাররেটেড থেকে প্রশংসা কুড়াতে চাই। কারণ পজিশন অনুযায়ী যদি সেই পজিশন এর দাম না রাখতে পারি সেটা খুবই অপমানজনক। অার সিক্রেটলি থেকে ভাল পজিশন ক্লেইম করতে পারলে অনেক প্রশংসা পাওয়া যায়।

হুম, প্রসঙ্গটা অার্জেন্টিনা এবং তার ওয়ার্ল্ড কাপ নিয়ে।

এই ওয়ার্ল্ড কাপ এ অার্জেন্টিনাকে তেমন কেও গোণায় ধরছেনা। অনেক জায়গায় অার্জেন্টিনাকে ফেবারিট এ টপ ৭ এও রাখা হচ্ছেনা। অনেকে ট্রল বের করছে। যেমন:-

:একটা জোক্স বলবো?
:হুম বলো!
:অার্জেন্টিনা কাপ জিতবে
: হা হা হা। সেরা ছিল

এ ধরনের ট্রল দেখা যাচ্ছে। এতক্ষণে হয়তো ভাবতেছেন অামি কি অার্জেন্টিনা ওয়ার্ল্ড কাপ জিতার দিকে যাচ্ছি নাকি।
না রে ভাই। উপরের কথা গুলা বলছি কারণ অার্জেন্টিনা হেটার্সদের কথায় এমন একটা ভাব থাকে, যেন অার্জেন্টিনা কোন টিম না।
পজিটিভলি নিলে ব্যাপারটা ঠিক অাছে। উপরে বললাম না, সিক্রেটলি থেকে ভাল করলে প্রশংসা পাব ভাল!

অার অাগে থেকে গলাবাজি করে হেরে গেলে?

অপমান এর শিকার হব।
এখন অামার প্রশ্ন ২০১৪ ওয়ার্ল্ড কাপ এর রানার্স অাপকে কেও গোণায় কেন ধরছেনা? অার্জেন্টিনার চেয়েও অনেক পিছিয়ে পড়া দলকে অনেকে সমর্থন দিচ্ছে, অনেকে তো অার্জেন্টিনা কে গ্রুপ পর্বেই বাদ দিয়ে দিচ্ছে।

এর কারণ হিসাবে কয়েকটা পয়েন্ট থাকতে পারে:-
১. ওয়ার্ল্ড কাপ এ কোয়ালিফাই করতে শেষ ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করা
২. নাইজেরিয়ার কাছে ৪-২ গোলে হারা
৩. স্পেন এর কাছে ৬-১ গোলে হারা
৪. ঘন ঘন কোচ পরিবর্তন হওয়া
৫. প্লেয়ারদের জাতীয় দল এ সর্বোচ্চ টা দিতে না পারা ইত্যাদি

রিসেন্ট সময়ের পয়েন্টগুলোই তুলে ধরার চেষ্টা করছি।
কারণ অাপনি চিন্তা করেন ২ বছর অাগেও কিন্তু এরকম অান্ডারএস্টিমেট করা হয়নি আর্জেন্টিনাকে।
গত ৮-৯ মাস ই বেশি হচ্ছে এবং ৮-৯ মাসে উপরোক্ত ঘটনা গুলো ঘটেছে।
নাহলে মিলিয়ে দেখেন!

৩ বছরে ৩ টা ফাইনাল খেলা দল হঠাৎ একদম গোণার বাইরে চলে গেছে।

অবশ্য এটা নিয়া মাথা ব্যথা অামাদের কম। কারণ অামরা ফেবারিট হিসাবে ওয়ার্ল্ড কাপ এ যেতে চাই না। বর্তমান পরিস্থিতি এমন হয়ে দাঁড়িয়েছে যে, অামাদের যে কত স্টার প্লেয়ার অাছে এটা বললেও ট্রল এর শিকার হতে হয়। অামরা এটা জানি স্পেন-ব্রাজিল-জার্মানি বিশ্বকাপ জয়ে সব কিছুতে এগিয়ে।

ভাবছেন ফ্রান্স কোথায়?
ফ্রান্স এর যথেষ্ট স্টার প্লেয়ার অাছে কিন্তু এরকম বড় মঞ্চে যে চাপ টা থাকা লাগে তা অাছে কিনা জানি না। কারণ ওদের রিসেন্ট ফর্ম স্পেন-ব্রাজিল-জার্মানির মত না।
ওরা কোয়ালিফায়ারে অাহামরি খেলে নি। তাও ওরাও এগিয়ে অামাদের থেকে কিন্তু বিশ্বকাপ জয় করতে পারবে কিনা এটা নিয়ে বাজি ধরতে অামি নোমান রাজি নই।

এখন অামরা অামাদের নিয়ে কিছু বলি।
অামরা ২০১৪ থেকে অনেক ভালো একটা দল।
হেটার্স রা হাসতে পারেন।
তবে যুক্তি গুলা দেখাই-
২০১৪ এর মেসি অার ২০১৮ এর মেসি এর মধ্যে অনেক তফাত। এখনের মেসি অনেক বেশি দায়িত্বশীল এবং পরিণত।যার প্রমাণ এই ২০১৭/১৮ সিজনে তার পারফর্ম্যান্স। অনেকে হয়তো বলবেন ২০১৩/১৪ সিজনে পারফর্ম্যান্স অারো ভাল ছিল। কিন্তু সেটার দলীয় ইমপ্যাক্ট কতটুকু ছিল?

আর্জেন্টিনা কি এবার আসলেই এতটা হেলাফেলা করার মত দল?
gollachhut.com

এখনকার মেসি একাই অনেক ম্যাচ নিজ দায়িত্বে হ্যান্ডেল করছে। এক ম্যাচেই গোল+এসিস্ট+কি পাস+চান্স ক্রিয়েট সব করছে।
সুতরাং মেসি ফ্যাক্ট এ ২০১৮ বিশ্বকাপে অার্জেন্টিনা ২০১৪ এর থেকে এগিয়ে।
২০১৪ তে অামাদের আক্রমণে অপশন ছিল মেসি, ইঞ্জুরিগ্রস্থ অাগুয়েরো, হিগুয়াইন, লাভেজ্জি, পালাসিও এবং দি মারিয়া। অার এখন?
এখন ২০১৪ থেকে পরিণত মেসি, গত ২ সিজন বেস্ট ফর্ম এ থাকা পাওলো দিবালা, পেপ গার্দিওলার অধীনে খেলা সার্জিও অাগুয়েরো, প্যাভন, দি মারিয়া, হিগুয়াইন, মেজা।

এখন অাপনারাই বলেন ২০১৪ এর আক্রমণ ভাল নাকি ২০১৮ এর ভাল?

২০১৪ এর মিডফিল্ড অপেক্ষাও এখনকার মিডফিল্ড ভাল কারণ এখন বানেগার মত অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার অাছে, লো সেলসোর মত নতুন ট্যালেন্ট, লানজিনির মত গেম চেঞ্জার আছে।

তবে একটা জায়গায় অামরা অনেকটা দুর্বল হয়েছি সেটা ফুল ব্যাক পজিশনে। ২০১৪ সালে পাবলো জাবালেতা এবং মার্কোস রোহো ছিল বেস্ট ফর্ম এ। বাট এখন অামাদের সে টাইপ ফুল ব্যাক নাই।

সেন্ট্রাল ডিফেন্সে এ তখন ছিল মার্টিন ডেমিকেলিস ও ম্যাশচেরানো, এখন ওতামেন্ডি, ফ্যাজিও, আর ম্যাশচেরানো।

অার গোল কিপিং নিয়ে সবাই যাচ্ছেতাই বলছে।

কারণ অার্জেন্টিনা গোল কিপার গুলো নাকি ক্লাব এ বেঞ্চ গরম করে। তার উপর কাল অাকস্মিক ভাবে অার্জেন্টিনার গোলবারের অতন্দ্র প্রহরী রোমেরো ইঞ্জুর্ড হয়েছে। এটা অার্জেন্টিনার জন্য অনেকটা মাইনাস পয়েন্ট। তবে অামাদের অপশন গোল কিপার অারমানি কে নিয়ে অনেকে বাজি ধরতে প্রস্তুত। তার এ সিজনের পারফর্ম্যান্স অনেকটা ভাল। সে রিভার প্লেট এর হয়ে অার্জেন্টিনা লীগ এ ১৫ ম্যাচ এ স্টার্ট করে ৮ টায় ক্লিন শিট রেখেছে এবং সেভিং রেট ৮০%। এছাড়াও কোপা লিবার্তাদোস এ ৫ ম্যাচ এ ৩ টা ক্লিনশিট অাছে। তবে ইউরোপ এ খেলার অভিজ্ঞতাটা না থাকায় একটু চিন্তার বিষয় তার উপর বিশ্বকাপ এর মত মঞ্চ। রোমেরোর মত সার্ভিস দিতে না পারলেও যা দিবে অাশা করি ফল পজিটিভই অাসবে।

এত কিছু বলার পরও অামি বলবোনা অামরা ওয়ার্ল্ড কাপ ফেবারিট কিন্তু এটা মাথায় রাখা লাগবে ২০১৪ তে অমন টিম নিয়ে ফাইনাল খেলতে পারলে ২০১৮ তে এরকম দল নিয়া স্বপ্ন দেখাটা অতটাও হাস্যকর নয়।

অামরাও রিসেন্ট ফর্ম এ মানতে বাধ্য অামরা কাপ জয়ের দৌড়ে নেই সম্ভবত। কিন্তু রিসেন্ট ফর্ম এর মানে এটা না যে অামরা পাড়ার দল। একটা কথা মাথায় রেখেন অার্জেন্টিনার কিছু না থাকলেও একজন মেসি অাছে।

জানি মেসি একা পারবেনা।
কিন্তু এক মেসি অার্জেন্টিনাকে একটা ভাল পজিশনে রেখে ওয়ার্ল্ডকাপ সমাপ্ত করার ক্ষমতা রাখে।

অামরা বর্তমান ফর্ম এ বলবোনা, অামরা কাপ জিতবো!
অামরা বলবো ইনশাল্লাহ অামরা একটা ভাল ওয়ার্ল্ড কাপ খেলবো।

অার্জেন্টাইন সাপোর্টারস রা একদম হাল ছেড়ে দিয়েননা। অাশা রাখুন। কষ্টের পর সুখ অাসে। অামরা কষ্ট পেতে পেতে অভ্যস্ত। অামাদের কেও গোণায় ধরছেনা এটা অামাদের জন্য ভাল। কারণ অামরা যদি ভাল করি তাহলে যারা গোণায় ধরে নাই তারা ব্যাপক কষ্ট পাবে।

তবে কেও অতি অাবেগী হয়ে এটা বলেন না অামরা কাপ জিতবো। কারণ এটার ফলে ট্রল সবারই খাওয়া লাগবে এবং না জিতলেও কষ্টও বেশি পাবেন।

ক্ষুদ্র অাশা করুন
ফল বড় পাবেন।

আর্জেন্টিনার টিম প্রিভিউ পড়ে নিন এখানে!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

3 × 5 =